skip to Main Content
ফ্রিল্যান্সিংয়ে সফল না হওয়ার প্রধান 5 কারণ

ফ্রিল্যান্সিংয়ে সফল না হওয়ার প্রধান 5 কারণ

ফ্রিল্যান্সিংয়ে সফল না হওয়ার প্রধান 5 কারণ ফ্রিল্যান্সিং কাজ করার মেইন বিষয় হল ক্রিয়েটিভিটি  যে কোন কাজকে যতটা সময় নিয়ে ভিন্নভাবে করার চেষ্টা করবেন, আপনার সফলতার পরিমান তুলনামূলকভাবে ভাল হবে। তবে নানা কারণে আপনার এই ক্রিয়েটিভিটি নষ্ট হতে পারে। তাই চলুন কথা না বাড়িয়ে আজকে আমরা পাঁচটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নিয়ে কথা বলবো

প্রথম কারণ কাজটা  ভালো করে না বুঝে মনোযোগ না দিয়ে করা

আমরা যখন ক্লায়েন্টের কাছ থেকে একটি কাজ পাই তখন আমাদের উচিত প্রথমে কাজটির ইনস্ট্রাকশন ভালো করে বুঝা যে কোন কাজ ভালোভাবে সম্পূর্ণ করার জন্য আমাদের কাজটা ভালোভাবে বুঝতে হবে এবং খুব মনোযোগ দিয়ে কাজটা করতে হবে তাহলে কাজটা খুব ভালোভাবে সম্পন্ন হবে

কাজের সময় আমাদের যদি মোবাইল ফোনে অতিরিক্ত ফোন কল আসে এবং পাশ থেকে যদি কেউ ঘন ঘন কথা বলে এবং আমাদের যদি কাজের  টেবিল থেকে বারবার ওঠা লাগে সে ক্ষেত্রে কাজটা সম্পূর্ণ করা খুবই কঠিন হয়ে যায় তাই আমাদের উচিত এ ধরনের বিষয়গুলো এড়িয়ে চলা এবং কাজের প্রতি মনোযোগী হওয়া

দ্বিতীয় কারণ হলো ঠিকমতো রাতে না ঘুমানো

কাজের ক্ষেত্রে ক্লাইন্টের দেওয়া ডেডলাইন মেনে চলতে হয় অনেকে ডেডলাইন মেনে চলার জন্য অনেক গভীর রাত পর্যন্ত কাজ করে থাকেন যার কারনে ঘুম কম হয় কাজের প্রতি মনোযোগ কমে যায় এবং ক্রিয়েটিভিটি নষ্ট হয়

আর তৃতীয় কারণ হলো অধিক চিন্তা করা কাজটি কেমন হবে এ বিষয় নিয়ে

কিছু ফ্রীল্যান্সার আছে কাজ করার সময় ভয় পায় যে কাজটা কেমন হবে ক্লায়েন্ট কাজটা পছন্দ করবে কিনা নানা বিষয় নিয়ে নেগেটিভ চিন্তা করার ফলে তার কাজটা ভালো না হওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যায়

কিন্তু যদি আমরা এই নেগেটিভ চিন্তা না করে নিজের ক্রিয়েটিভিটি দিয়ে  হাই কোয়ালিটি ডিজাইন প্রদান করি সে ক্ষেত্রে ক্লায়েন্টের পছন্দ হওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যায় আমাদের সকলের মনে রাখা উচিত যে ক্লায়েন্ট আমাদের যখন কাজ দেয় তখন সে একটা পছন্দ করবে এবং আমাদের কাজ তার পছন্দ হয়েছে বিধায় সে কাজটা আমাদের দিয়েছে অযথা আমরা নেগেটিভ চিন্তা করে আমাদের ক্রিয়েটিভিটি নষ্ট করি।  মনে রাখতে হবে, ক্লায়েন্ট আপনাকে পে করছে তার মানেই কাজ তার পছন্দ হয়েছে বা হবে। তাই এই ধরণের চিন্তা ছাড়াই কাজ করুন।

চতুর্থ কারণ হলো বেশি বেশি আয় করার চিন্তা

অনেকে বেশি আয় করার চিন্তায় তাড়াহুড়ো করে কাজ করে যার ফলে কাজের কোয়ালিটি ভালো হয়না আমাদের মনে রাখা উচিত কাজটা যত ভালোভাবে করে ফুটিয়ে তুলতে পারব ততই আমাদের কাজের চাহিদা বাড়বে সেক্ষেত্রে  আয়ও বাড়বে।

সর্বশেষ বিষয় হলো অধিক কাজের চাপ

মনে রাখবেন যে কোন ক্লায়েন্ট চাইবে কাজটা তাড়াতাড়ি করে নেওয়ার জন্য এটাই স্বাভাবিক। তবে আমাদের অবশ্যই ডেডলাইনের কথা মনে রাখতে হবে। যেকোনো কারণে আমাদের কাজটি শেষ করতে বিলম্ব হতে পারে। তাই যে কাজটি আমরা 5 দিনে করতে পারবো , ক্লায়েন্টের কাছ থেকে সেই কাজটি করার জন্য কমপক্ষে  ৭ সময় নিতে হবে।

ফলে আমাদের চাপ থাকবে না। কিন্তু এটা যদি না করা হয় তাহলে তাড়াতাড়ি কাজটি শেষ করতে গিয়ে ভালভাবে করতে পারব না, ফলে আমাদের ক্রিয়েটিভিটি নষ্ট হতে পারে। বুঝতে পারলেন কেন আমাদের ক্রিয়েটিভিটি নষ্ট হয়? আমাদের যদি উপরিক্ত কারণসমূহ ভালোভাবে নিজেদের মাথায় রেখে কাজ করি তাহলে আমরা অবশ্যই ভালো কিছু করতে পারব।